অবশেষে ডিভোর্স নিয়ে মুখ খুললেন নুসরাত

অবশেষে ডিভোর্স নিয়ে মুখ খুললেন নুসরাত

অনলাইন ডেস্ক : অনেকের কাছেই তিনি ক্রাশ গার্ল। সুন্দরী এবং সু অভিনেত্রী। কিন্তু গেল বছরের শুরুতে টালিউডে হঠাৎ খবর বেরুয় এই নায়িকা নাকি ব্যাচেলর নন। কলকাতার নুসরত জাহান নাকি বিবাহিত।

গণমাধ্যমের খবর আসে, টলিউডের অন্যতম সেরা অভিনেত্রী নুসরত জাহান কয়েক বছর আগে বিয়ে সেরে ফেলেছেন। পাত্রের নাম ভিক্টর ঘোষ। তার সাথে সম্পর্কের কথা কখনও অস্বীকার করেননি নায়িকা! তবে বরাবরই ভিক্টরকে তিনি নিজের সঙ্গী হিসাবে পরিচিতি দিয়ে এসেছেন। সবাই এ-ও জানেন যে, দু’জনে একসঙ্গে থাকেনও একই ছাদের তলায়। অনেক বছর ধরেই তারা রয়েছেন লিভ-ইন সম্পর্কে।

তবে এবার জানা গেল, অবশেষে নুসরাতের বিয়ে বিচ্ছেদ হয়ে গেছে। শুধু তাই নয়, ৫ বছর ধরে ঘর করা স্বামীর সঙ্গে সম্পর্ক চোকাতে মোটা অংকের টাকাও খোয়াতে হয়েছে নুসরাতকে।

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়, দীর্ঘদিনের সঙ্গী ভিক্টর ঘোষের সঙ্গে সুখের সময় কাটছিল এই অভিনেত্রীর। কিন্তু সুখটা দীর্ঘ হয়নি। কারণ নুসরাত পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়েন বলে খবর ছড়ায়।

এ নিয়ে ভিক্টরের সঙ্গে তার দূরত্ব বাড়তে থাকে। দূরত্ব গড়ায় বিচ্ছেদে। চলতি বছরের জানুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহে নুসরাত জাহান ও ভিক্টর ঘোষের মধ্যে আইনি বিচ্ছেদ হয়ে গেছে।

জানা গেছে, বিচ্ছেদের আগে এই সুদর্শনীর সঙ্গে এক প্রযোজকের ঘনিষ্ঠতা এবং তার পরে এক শাড়ি ব্যবসায়ীর সঙ্গে প্রেম-সব মিলিয়ে বিষয়টি জটলা পাকায়। ভিক্টর নুসরাতের এসব বিষয়ে কিছুতেই মেনে নিতে পারছিলেন না। নুসরাত সিদ্ধান্ত নেন বিচ্ছেদের।

অবশেষে ভিক্টরের কাছ থেকে বিচ্ছেদ চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হন নুসরাত। ডিভোর্স দেয়ার জন্য নুসরাতের কাছে ভিক্টর মোটা অংকের টাকা দাবি করেন।

চলতি বছরেই এক শাড়ি ব্যবসায়ীর সঙ্গে নুসরতের বিয়ের কথাও শোনা যাচ্ছে। সুতরাং ডিভোর্স পাওয়াটা নায়িকার দিক থেকে খুব জরুরি হয়ে পড়ে। তাই অনেকটা বাধ্য হয়েই টাকা দিয়ে ভিক্টরের সঙ্গে সম্পর্কের ইতি টানেন নুসরাত।

তবে নুসরাত ভিক্টরের সঙ্গে তার বিয়েটাই অস্বীকার করতে চাচ্ছেন। তার যুক্তি ভিক্টরের সঙ্গে তার কখনও বিয়েই হয়নি। তারা ভালো বন্ধু ছিলেন, সঙ্গী ছিলেন।

এ নায়িকার ভাষ্য- ‘যারা আমার ডিভোর্স নিয়ে কথা বলছেন, আমার বিয়েতে কি তারা খেতে এসেছিলেন? ইদানীং আমার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে অনেক গুজব রটেছে। এতে আমার বা আমার পরিবারের কিছু আসে যায় না। কথাগুলো আমরা মানিও না।’

রাজ চক্রবর্তীর শত্রু ছবিতে প্রথম জিতের সঙ্গে অভিনয় করেন নুসরাত। এরপর খোকা ৪২০, খিলাড়ি, অ্যাকশন, সন্ধ্যা নামার আগে, জামাই ৪২০, জুলফিকার, ওয়ান, নাকাব ছবিগুলো অভিনয় করে কলকাতা শীর্ষ স্থানীয় নায়িকাদের নামের তালিকায় উঠে আসে নুসরাতের নাম।

আপনার মন্তব্য লিখুন............