অবশেষে হাসল সাব্বিরের ব্যাট, এবার খুশি মাশরাফি!

0
7
অবশেষে হাসল সাব্বিরের ব্যাট, এবার খুশি মাশরাফি!

অনলাইন ডেস্ক : গত কয়েক মাস ধরেই অনানুষ্ঠানিক কথোপকথনে বেশ কয়েকবারই মাশরাফি বলেছেন সাব্বিরের ব্যাটে রানের জন্য অপেক্ষা করছেন তিনি। অবশেষে বিপিএলের ম্যাচে সিলেটে এসে শেষ ম্যাচে ব্যাট হাতে জ্বলে উঠেছেন সাব্বির, আগের ইনিংসগুলোতেও তাকে বেশ সাবলীল এবং স্বচ্ছন্দ মনে হয়েছে।

খেলেছেন নিজের সহজাত সব শট। এই যে সাব্বিরের রানে ফেরা, তার ব্যাট কথা বলা এবং আবার তেজোদ্দীপ্ত রুপে সাব্বিরের ফেরা- সেটা আজকের ম্যাচে প্রতিপক্ষ রংপুর রাইডার্স অধিনায়ক মাশরাফির জন্য চিন্তা ও উদ্বেগের কারণ হলেও বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক নিশ্চয়ই খুশি।

কেননা সাত নম্বর পজিশনে যে সাব্বিরের মতোই দ্যুতি ছড়ানো, তেজোদ্দীপ্ত ও কার্যকর একজনকেই খুঁজছে বাংলাদেশ দল এবং দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা। যা পাওয়া যায় না সাত নম্বরে বিকল্প হিসেবে খেলা আরিফুল হক, মোহাম্মদ মিঠুন কিংবা মোহাম্মদ সাঈফউদ্দীনদের ব্যাটে।

ইনিংসের ১২তম ওভারে নিজের টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের ১৩তম পঞ্চাশ ছোঁয়ার আগে ফরহাদ রেজার ডেলিভারিকে ২ বার, নাহিদুল ইসলাম ও সোহাগ গাজীর ডেলিভারিকে একবার করে হাওয়ায় ভাসিয়ে সীমানা ছাড়া করেন তিনি।

সব মিলিয়ে ২ চার ও ৪ ছক্কার মারে মাত্র ৩৪ বলে নিজের পঞ্চাশ পূরন করেন তিনি। ফিফটি পেরিয়েই থেমে যাননি সাব্বির। টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে নিজের দ্বিতীয় এবং বিপিএলের প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে দুইটি সেঞ্চুরি হাঁকানোর আশা বাঁচিয়ে রেখে খেলতে থাকেন এ হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান।

মাত্র ১৫ ওভারেই সাব্বিরের ব্যক্তিগত সংগ্রহ গিয়ে পৌঁছায় ৭৪ রানে। শেষের ৩০ বল থেকে সাব্বির ২৬ রান করতে পারলেই হয়ে যেত এবারের আসরের প্রথম ব্যক্তিগত সেঞ্চুরি। কিন্তু ক্যারিবিয়ান নিকলাস পুরান পরের ওভারগুলোয় তাণ্ডবলীলা চালালে তেমন ব্যাটিংয়ের সুযোগই পাননি সাব্বির।

যে কারণে ১৯ ওভার শেষে ৫০ বলে ৫ চার ও ৬ ছক্কায় সাব্বির অপরাজিত থাকেন ৮৫ রানে, যা এবারের আসরের সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত সংগ্রহ। শফিউল ইসলামের করা শেষ ওভার থেকে ১৫ রান নিতে পারলে হয়ে যাবে সেঞ্চুরি, এ ভাবনা থেকেই প্রথম বলে ছক্কা হাঁকানোর চেষ্টা করেন তিনি।

কিন্তু ঠিকঠাক ব্যাটে-বলে না হওয়ায় ক্যাচ উঠে যায় লংঅফে। পরম নির্ভরতায় সে বলটি তালুবন্দী করে সাব্বিরকে সাজঘরের পথ দেখিয়ে দেন রিলে রুশো। সেঞ্চুরি করতে না পারলেও এতোদিন ধরে চলা অফফর্ম দূর করে নিজের সেরা সময়ের আভাস ঠিকই দিয়েছেন সাব্বির রহমান রুম্মন। যা নিশ্চিতভাবেই স্বস্তি দেবে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফিকে।

আপনার মন্তব্য লিখুন............