চিরিরবন্দরে আছিয়া নাজির স্কুল এখন নারী ও শিশু নির্যাতনের আখড়া

0
163
চিরিরবন্দরে আছিয়া নাজির স্কুল এখন নারী ও শিশু নির্যাতনের আখড়া

দিনাজপুর থেকে তপন চন্দ্র রায় : দিনাজপুর চিরিরবন্দর উপজেলার ৭নং আউলিয়াপুকুর ইউনিয়নে আছিয়া-নাজির রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ কাইজার আলী কর্তৃক শিশু ও সহকারী শিক্ষিকা হয়রানীর শিকার।

সপ্তম শ্রেণির একজন ছাত্রী এই স্কুল হইতে শিক্ষক কর্তৃক অপহরণ হইয়া ৭দিন পর ঢাকায় পাওয়া যায় এই সম্পর্কে দাদু আমাদের সাংবাদিককে বলেন, তার নাতনীকে অপহণের পিছনে হেড মাষ্টার সহ আরো ২জন শিক্ষক জড়িত ছিল একজন সহকারী শিক্ষক দীর্ঘদিন তাকে উত্ত্যক্ত করলেও হেড মাষ্টার কোনরকম পদক্ষেপ গ্রহণ করে নাই। সুইটি নামে এক সহকারী শিক্ষিকা হেড মাষ্টারের দ্বারা নির্যাতনের শিকার হইলে সেই স্কুল কমিটির কাছে বিচার চায়, বিচার তো দুরের কথা উল্টা হেড মাষ্টার তাকে হুমকি প্রদান করে এবং বলে আমি কয়বার আপনার গায়ে হাত দিয়েছি তার হিসাব নিয়ে আসেন।

ছোট বাউল দেবীগঞ্জ বাজারে ঐ স্কুলের এক ছাত্রীর মা জানায় তার মেয়েকে হেড মাষ্টার শাষনের নামে বুকের উপরে মারত ছাত্রী অভিযোগ করলে তিনি বলেন, এটা চাইনিজ ষ্টাইল মাইর, নাম না বলা ঐ ছাত্রীর মা বলেন আর আর এক ছাত্রীর মা তাকে বলেছে হেড মাষ্টার তার মেয়ের পিঠে উত্তেজিত পুরুষাঙ্গ ঠেকিয়ে তাকে কুকর্মের দৃষ্টি আর্কষনের চেষ্টা করে। এক প্রবাসীর স্ত্রীও এখানে শিক্ষিকা থাকা কালে হেড মাষ্টারের দ্বারা উত্ত্যক্তের শিকার হয়।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে একটি অভিযোগ পত্র দাখিল হয়। অভিযোগের বিষয়ে জানতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ গোলাম রব্বানী জানান, তদন্ত করার জন্য উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে দায়িত্ব দেওয়া আছে, না দেওয়া পর্যন্ত কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারছি না।

যখন সমাজ, সরকার সবাই নারী ও শিশু নির্যাতনের বিরুদ্ধে সোচ্চার তখন এই রকম লম্পট প্রধান শিক্ষককে আইনের আওতায় আনা এটাই দেখার বিষয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন............

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here