দাদির কাছে নেশা করার ২০ টাকা না পেয়ে তরুণের আত্মহত্যা

দাদির কাছে নেশা করার ২০ টাকা না পেয়ে তরুণের আত্মহত্যা

অনলাইন ডেস্ক : বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে দাদির কাছে নেশা করার ২০ টাকা না পেয়ে সুমন প্রামানিক (১৮) নামে এক তরুণ ঘরের তীরের সঙ্গে রশি বেঁধে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। সোমবার সকালে উপজেলার কুতুবপুর তালতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। দুপুরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে।

স্বজনদের উদ্ধৃতি দিয়ে চন্দনবাইশা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই জাকির হোসেন জানান, তালতলা গ্রামের শরিফ প্রামানিকের ছেলে সুমন প্রামানিক ভবঘুরে। সঙ্গদোষে মাদক সেবন শুরু করে। ৮ বছর বয়সে মা মারা গেলে দাদি ওয়াহেদা বেওয়া তাকে লালন পালন করতেন। প্রতিদিন সে নেশা করার জন্য দাদির কাছে ১০-২০ টাকা করে নিতো।

সোমবার সকালে সুমন দাদির কাছে ২০ টাকা দাবি করে। টাকা দিতে দেরি হওয়ায় সে ঘরে ঢুকে তীরের সঙ্গে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করে। টের পেয়ে পুলিশে খবর দিলে দুপুরে লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে সারিয়াকান্দি থানায় অস্বাভাবিক মৃত্যু মামলা হয়েছে।

দাদি ওয়াহেদা বেওয়া সাংবাদিকদের জানান, সুমন লেখাপড়া করতো না। তার মাথায় সমস্যা ছিল। সবসময় আড্ডা ও বন্ধুদের সঙ্গে নেশা করতো। নেশার টাকা না দিলে বাড়িতে ভাঙচুর ও অত্যাচার করতো। সোমবার সকালে নেশার টাকা না দেয়ায় সে রাগ করে গলায় দড়ি দিয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন............