দুই দেশের ‘নাগরিকত্ব’ চান জয়া

দুই দেশের ‘নাগরিকত্ব’ চান জয়া
জয়া আহসান। ফাইল ছবি

শব্দপাতা ডেস্ক : ‘দেবী’ শেষ করে অভিনেত্রী জয়া আহসান এখন কলকাতায়। শুক্রবার (০৪ জানুয়ারি) সেখানে মুক্তি পাবে তার নতুন চলচ্চিত্র ‘বিজয়া’। কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় পরিচালিত এ ছবির প্রচারণায় গিয়ে ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমকে জানান, ভারত সরকারের অনুমতি পেলে তিনি দু’দেশের নাগরিকত্ব নিতে চাইবেন।

একটি ভিডিও সাক্ষাৎকারে উপস্থাপিকা প্রশ্ন করেন দ্বৈত নাগরিকত্ব জয়া চান কিনা। এ প্রসঙ্গে জয়া বলেন, সেই অপশনটা তো নেই। যদি সম্ভব হতো আমি অবশ্যই নিতাম। কিন্তু ভারতবর্ষ সেটা পারমিট করছে না। আসলে আমি দুটি বা একটি পাসপোর্ট ক্যারি করি না কেন, আমি মনে প্রাণে বাংলার মানুষ।

জয়া জানান, বাংলাদেশে যেমন দর্শক তার কাজ পছন্দ করেন তেমনি এপার বাংলা থেকেও অনেক ভালোবাসা পেয়েছেন তিনি। তাই ভারত সরকারের অনুমতি পেলে তিনি দু’দেশের নাগরিকত্ব নিতে চান। তবে তা যদি নাও হয়, তাতেও কোনো অসুবিধা নেই। কারণ, দুই বাংলার মনেই তিনি বাস করেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী সার্কভুক্ত আটটি দেশ, মিয়ানমার ও সরকারের নিষিদ্ধ ঘোষিত দেশ ছাড়া অন্য সব দেশের দ্বৈত নাগরিকত্ব নিতে পারবেন বাংলাদেশিরা। অপরদিকে ভারতসহ সার্কভুক্ত বাকি দেশগুলোও নিজেদের মধ্যে দ্বৈত নাগরিকত্বের অনুমোদন দেয় না।

এদিকে, দুদিন বাদেই মুক্তি পাবে ‘বিজয়া’। নায়িকার মতে, ‘পদ্মা (ছবির চরিত্র- জয়া) এখন অনেক বেশি পরিণত হয়েছে। তার জীবনে এখন স্বামী, সন্তান, সংসার রয়েছে। কিন্তু নাসিরের সঙ্গে দেখা হলে কোন দিকে মোড় নেয় সেই কাহিনি, সেটাই দেখার।’

‘বিজয়া’ ভারতীয় জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত ‘বিসর্জন’ ছবির সিক্যুয়েল।

আগের ছবি যেখানে শেষ হয়েছিল, ঠিক সেই জায়গা থেকে শুরু হয়েছে ‘বিজয়া’র গল্প। চলচ্চিত্র দুটি পরিচালনা ও অভিনয় করছেন কৌশিক গাঙ্গুলি। জয়ার সঙ্গে কেন্দ্রীয় চরিত্রে আছেন আবির চট্টোপাধ্যায়।

জয়া জানান, ৪ জানুয়ারি পশ্চিমবঙ্গে ‘বিজয়া’র পাশাপাশি একই দিনে বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে তার ‘বিসর্জন’ ছবিটি। ঢাকার মধুমিতা, বলাকা, শ্যামলী ও স্টার সিনেপ্লেক্সসহ চট্টগ্রামের একটি সিনেপ্লেক্সে ছবিটি দেখা যাবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন............