নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রজ্বলিত করতে হবে : জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ

নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রজ্বলিত করতে হবে : জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ বলেছেন, ‘আগামী প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রজ্বলিত করতে হবে। আগামীতে মুক্তিযুদ্ধ হবেনা, কিন্তু তাদেরকে দেশ গড়ার কাজে লাগবে।’ সোমবার দুপুরে দোয়ারাবাজার উপজেলার সুরমা ইউনিয়ন পরিষদ কর্তৃক তরুণ প্রজন্মের মধ্যে বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযোদ্ধ বিষয়ক জ্ঞান ও চেতনা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা এবং ‘বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ বিষয়ক কুইজ-২০১৮’ এর পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়।

সুরমা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার মামুনূর রশীদের সভাপতিত্বে এবং সুরমা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলামের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ আরো বলেন, ‘শুধু প্রাতিষ্ঠানিক পড়াশোনা করলেই চলবেনা। পড়াশোনার পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ এবং বাংলাদেশকে জানতে হবে। সর্বক্ষেত্রে শিক্ষার দরকার আছে।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের মধ্যে দেশ প্রেমের কিছুটা ঘাটতি থাকতে পারে কিন্তু মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে দেশপ্রেমের ঘাটতি নেই। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন উৎপাদনশীল কাঠামোর মধ্যে পৌঁছে গেছে। দেশের মানুষের মাথাপিছু আয়, শিক্ষার হার, বিদ্যুতের উৎপাদন বেড়েছে।’ এসময় মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মজিদ বীরপ্রতীকের দাবির প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ অচিরেই টেংরা বাজারে মুক্তিযোদ্ধাদের নামে একটি যাত্রী ছাওনি নির্মাণের আশ্বাস দেন এবং মুক্তিযোদ্ধাধর্মী অনুষ্ঠানের আয়োজন করায় সুরমা ইউপি চেয়ারম্যানের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মজিদ বীরপ্রতীক, দোয়ারাবাজার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মহুয়া মমতাজ প্রমুখ। বিশেষ অতিথির মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস, সহকারী কমিশনার আফিস আল জিনাদ, হাসান আব্দুল্লাহ মাহমুদ, আকলিমা আক্তার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক শামীমুল ইসলাম শামীম, সরকারি জুবিলী উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ফয়জুর রহমান, টেংরা মাধ্যমিক বিদ্যালয়েয় প্রধান শিক্ষক মোঃ নজরুল ইসলাম, দোয়ারাবাজার সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি তাজুল ইসলাম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মাওলানা মিশকাতুল ইসলাম এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন, সুরমা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার মামুনূর রশীদ। অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে মুক্তিযোদ্ধাদেরকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়। পরে বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ বিষয়ক কুইজ -২০১৮ এর বিজয়ী শিক্ষার্থীদের হাতে পুরষ্কার তুলে দেন জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ।

আপনার মন্তব্য লিখুন............