নারায়ণগঞ্জে একই পরিবারের ৫ জন নিখোঁজ নিয়ে রহস্য

নারায়ণগঞ্জে একই পরিবারের ৫ জন নিখোঁজ নিয়ে রহস্য

অনলাইন ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সিদ্ধিরগঞ্জের পূর্ব নিমাইকাসারী মাদানীনগর নুরবাগ এলাকায় একটি বাড়ি থেকে এক গার্মেন্ট কর্মকর্তার স্ত্রী, দুই মেয়ে এবং ভায়রার মেয়ে ও ছেলেসহ মোট ৫ জনের নিখোঁজ নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। এই ঘটনায় ভুক্তভোগী গার্মেন্ট কর্মকর্তা জামাল সরদার গত বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি জিডি (নং-৬৯২) দায়ের করলেও নিখোঁজদের পরিবার-পরিজনের কোন ধরনের তৎপরতা নেই।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে ওই গৃহবধূর সর্বশেষ লোকেশন ব্রাহ্মণবাড়িয়া পেলেও তার পরিবার অসংলগ্ন কথাবার্তা বলছে। যে কারণে রহস্য আরও ঘনীভূত।

নিখোঁজ ব্যক্তিরা হলেন, গার্মেন্ট কর্মকর্তা জামাল সরদারের স্ত্রী নিপা (৩০), মেয়ে আশামনি (১১), প্রিয়া মনি (৪) ও তার ভায়রার মেয়ে সুমাইয়া (১৪) ও শালার ছেলে আজিম (৭)।

জামালের গ্রামের বাড়ি বরিশালের উজিরপুরের সানুহার গ্রামে। তার শ্বশুর বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কাঞ্চনপুর এলাকায়।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি শাহীন শাহ পারভেজ জানান, নিখোঁজের জিডি পাওয়ার পরপরই আমরা তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে গৃহবধূ নিপার অবস্থান শনাক্তের চেষ্টা করি। তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে দেখা গেছে, গৃহবধূ নিপা গাড়ি দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌঁছেছেন। তার সর্বশেষ লোকেশনও ব্রাহ্মণবাড়িয়া। আমরা ওই গৃহবধূর মায়ের সঙ্গেও কথা বলেছি। তিনি উল্টাে আমাদেরকে বলছেন- আপনারা কেন কল করেছেন আমার মেয়ে জামাইকে কল করতে বলেন। তাদের মেয়ে নিখোঁজ হলে তাদের মধ্যে যে ধরনের উদ্বিগ্ন ভাব থাকার কথা তেমনটি ছিল না। এছাড়া আমরা ওই এলাকার ইউপি চেয়ারম্যানের সঙ্গেও কথা বলেছি। আমরা শুনেছি স্বামীর সঙ্গে স্ত্রীর সম্পর্ক গত কিছুদিন ধরে ভালো যাচ্ছিল না। সে কারণে আমরা ধারণা করছি ওই গৃহবধূ হয়তো রাগ করে বাবার বাড়ি চলে গেছে। এছাড়া ঘটনার এক সপ্তাহ হয়ে গেলেও নিখোঁজের স্বামী ছাড়া আর কেউ থানায় কোন ধরনের অভিযোগ করেনি। নিখোঁজদের সন্ধানে আমাদের চেষ্টার কোন ত্রুটি ছিল না।

আপনার মন্তব্য লিখুন............