নায়লা নাঈমের বাসায় পুলিশ

নায়লা নাঈমের বাসায় পুলিশ

শব্দপাতা ডেস্ক : সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অত্যন্ত পরিচিত মুখ নায়লা নাঈম। নিজেকে কিছুটা উন্মুক্তভাবে উপস্থাপন করার মাধ্যমে মূলত তিনি পরিচিতি পান। একাধারে দন্ত চিকিৎসক, মডেল ও অভিনেত্রী তিনি। তবে সবকিছুর ঊর্ধ্বে হলো তিনি একজন পশুপ্রেমি। অবসর পার করেন নিজের পালিত কিছু অসহায় কুকুর বিড়ালের সঙ্গে।

পশুদের সেবাযত্ন করতে তিনি ভালোবাসেন। তাদের প্রতি অত্যাচার দেখলে প্রতিবাদ করেন। রাস্তায় পড়ে থাকা অসুস্থ ও আহত পশুদের স্থান দেন নিজের বাসায়। এভাবে দিনে দিনে বেশকিছু কুকুর-বিড়ালের অভয়াশ্রম হয়েছে নাইলার বাসা। আর নায়লা হলেন এসব অসহায় পঙ্গু পশুদের অভিভাবক।

সম্প্রতি একটি ঘটনা নায়লাকে বেশ যন্ত্রণা দিচ্ছে। পশুদের প্রতি তার মমত্ববোধকে প্রতিবেশীরা ঠিকভাবে না নিয়ে তার বিরুদ্ধে পরিবেশ অধিদপ্তরে অভিযোগ করেছেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে নায়লার বাসায় তদন্ত করতে আসেন পুলিশ। আর এ ঘটনায় কষ্ট পেয়েছেন নায়লা। দুঃখ প্রকাশ করে ফেসবুকে পোস্ট করেছেন তিনি।

নায়লার স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো:
‘ঢাকা শহরে পশুপ্রেমিক মানুষের জন্য প্রতিবন্ধকতার কোন শেষ নাই। আমি নায়লা নাঈম, আমার নিজের বাসায় বিড়াল পুষি। আমার বিড়াল কারোটা খায় না, কারোটা পরেও না, এমনকি ঘর ছেড়ে বেরও হয় না। তাও এটা নিয়ে প্রতিবেশীর অভিযোগ। অভিযোগটা দারুণ মনগড়া এবং হাস্যকর। “আমি নায়লা নাঈম নাকি বাণিজ্যিকভাবে বিড়াল কেনাবেচা করি!”- এই অভিযোগ তারা করে পরিবেশ অধিদপ্তরের কাছে এবং সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতে ইন্সপেক্টর আসে আমার বাসা পরিদর্শন করতে। নিজের চোখের সামনে নিজের ব্যক্তিস্বাধীনতা এভাবে ক্ষুণ্ণ হতে দেখা কতটা অপমানজনক হতে পারে আমার জন্য তা হয়ত আপনারা কেউ উপলব্ধি করতে পারবেন না। এর বিচার আমি কার কাছে চাইব???’

আপনার মন্তব্য লিখুন............