প্যারাডাইস শ্রমিকদের কলকারখানা অধিদপ্তরের সামনে বিক্ষোভ

0
13
প্যারাডাইস শ্রমিকদের কলকারখানা অধিদপ্তরের সামনে বিক্ষোভ

শব্দপাতা ডেস্ক : প্যারাডাইজ কেবলস লিমিটেডের শ্রমিকদের পাওনা টাকার দাবীতে এবার বিক্ষোভ মিছিল করে নারায়নগঞ্জ কলকারখানা অধিদপ্তরে। সোমবার (৮ এপ্রিল) প্যারাডাইজ কেবলস লিমিটেড এর ৫ মাসের বকেয়া বেতন, ২ বছরের ওভারটাইম, বাৎসরিক ছুটির টাকাসহ অন্যান্য পাওনাদি আদায়ের দাবীতে নারায়ণগঞ্জ কলকারখানা অধিদপ্তরের সামনে মানববন্ধনের জন্য সকাল থেকেই অবস্থান নেয় প্যারাডাইজ কেবলস লিমিটেডের শ্রমিকেরা।

মানববন্ধনে প্যারাডাইজ কেবলসের শ্রমিকেরা বলেন,আমরা অনেক বছর যাবত কাজ করছি কিন্তু আমাদের বেতন ঠিকমতো দিচ্ছে না। এক সময় এই গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিকে আমরা নিজের পরিবারের মত মনে করেছি কিন্তু মালিকরা কখনো আমাদের সন্তানের মত দেখেন নাই। আমাদের ঘামের টাকা দিয়ে নিজেরা ফুর্তি করেছেন কিন্তু শ্রমিকেরা না খেয়ে আছে তা দেখছেন না। আমরা আমাদের বেতন যে পর্যন্ত না পাবো আমাদের আন্দোলন চালিয়ে যাবো পলাশ ভাইয়ের নেতৃত্বে।

এসময় শ্রমিকের বেতনের দাবীতে মানববন্ধনে ইউনাইটেড ফেডারেশন অব গার্মেন্টস ওয়াকার্স জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক কবির আহমেদ রাজু বলেন, গত ৩ বছর যাবৎ আমার শ্রমিকেরা প্যারাডাইজ কেবলস লিঃ এর বেতন ঠিক মত পাচ্ছে না। পাঁচ মাসের বকেয়া বেতন সহ দুই বছরের ওভারটাইম বাৎসরিক ছুটির টাকা আপনারা আটকিয়ে রেখেছে। আপনাদের বারবার বলার পর আমার শ্রমিকদের কথা শুনেন নাই। উল্টো আপনারা গার্মেন্টস বন্ধ করে দিলেন। আমার শ্রমিকেরা বেতনের টাকা না পাবার কারনে বাসা ভাড়া দিতে পারে নাইঈ তাই অনেক বাসার মালিক শ্রমিকদের বাসা থেকে মারধর করে বের করে দেয়। অনেককে দোকান বাকীও দিতে চাই নাই তাই আমার ১৫০ জনের মত শ্রমিক গ্রামে না বকে চলে যেতে বাধ্য হয়েছে।

আমরা অনেক অনুরোধ করার পরও কোন আপনারা গার্মেন্টস মালিক কোন সুব্যবস্থা নেন নাই তাই আমরা ২ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের সামনে বেতন ও বকেয়া বেতনের দাবীতে মানববন্ধন করি। আমরা চাই না জনপথ ভোগান্তির স্বীকার হোক। আপনাদের ২৪ ঘন্টা আল্টিমে টাম দেবার পরও আপনারা মালিকপক্ষ শ্রমিকদের বেতন দেন নাই আজ ৮ এপ্রিল হয়ে গেলো। তাই আমরা বাধ্য হয়েছি এখানে এসে মানববন্ধন করতে। আপনারা যদি অবিলম্বে শ্রমিকদের বেতন পরিশোধ না করেন তাহলে আমরা আমাদের শ্রমিক নেতা কাউসার আহমেদ পলাশ ভাইয়ের নেতৃত্বে আন্দোলন গড়ে তুলবো। ৭৪টি সংগঠনকে নিয়ে পলাশের ভাইয়ের নেতৃত্বে নারায়ণগঞ্জে মাঠে নামবো আমরা।

আজকের বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে এসেছে কাদের জন্য। এই গার্মেন্টস শিল্পের জন্যই তো।কিন্তু আপনারা গার্মেন্টস মালিকপক্ষ শ্রমিকের বেতন ঠিক মত দেন না। আপনাদের সব কিছু চলে শ্রমিকের ঘামের টাকায় আর শ্রমিকদের কোন মূল্য দেন না। আপনাদের কাছে শ্রমিকদের কি কোন দাম নেই। আপনারা অবিলম্বে শ্রমিকদের বেতন আদায় করেন। আমরা পরিবেশ খারাপ করতে চাই না। আপনাদের শ্রমিকের টাকা দিয়ে সুন্দরভাবে জীবনযাপন করেন বিদেশ গিয়ে লাখ লাখ টাকা দিয়ে চিকিৎসা করান অথচ শ্রমিকদের বেতন দিতে পারেন না। আপনারা যদি শ্রমিকদের সন্তানের মত না দেখতে পারেন তাহলে গার্মেন্টস ব্যবসা বন্ধ করে মুন্সিগঞ্জ গিয়ে আলু বিক্রি করেন। আমাদের প্রধানমন্ত্রী শ্রমিকবান্ধব সরকার। আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি। আপনারা মালিক কতৃপক্ষ যদি শ্রমিকের বেতন অবিলম্বে না দেন তাহলে আমরা বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় শ্রমিক আন্দোলন গড়ে তুলবো পলাশ ভাইয়ের মাধ্যমে।

আগামীকাল থেকে এখানে অবস্থান করেই আমরা আমাদের আন্দোলন করে যাবো আমাদের শ্রমিকদের বেতনের দাবী আদায়ের। প্যারাডাইজ কেবলস লিমিটেডের শ্রমিকদের বকেয়া বেতনের দাবী আদায়ে নারায়ণগঞ্জ কলকারখানা অধিদপ্তর সামনে মানববন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন, ইউনাইটেড ফেডারেশন অব গার্মেন্টস ওয়াকাস জেলা শাখার যুগ্ন সম্পাদক নুরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক লিটন সরকার।

আপনার মন্তব্য লিখুন............