ফেব্রুয়ারির শেষেই শিলাবৃষ্টি-ঝড়

0
4
ফেব্রুয়ারির শেষেই শিলাবৃষ্টি-ঝড়
ফাইল ছবি

অনলাইন ডেস্ক : মৌসুমের শেষ শৈত্যপ্রবাহ চলছে। এ শৈত্যপ্রবাহ বিদায় নিতেই বিদায় নিতে পারে শীত। আর মাসের শেষের দিকে দেশের বিভিন্ন স্থানে শিলাবৃষ্টিসহ ঝড়ের পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

আবহাওয়া অধিদফতরের গঠিত বিশেষজ্ঞ কমিটি এই পূর্বাভাস দিয়েছে। রোববার আবহাওয়া অধিদফতরে কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। অধিদফতরের পরিচালক ও বিশেষজ্ঞ কমিটির চেয়ারম্যান সামছুদ্দিন আহমেদ এতে সভাপতিত্ব করেন।

ফেব্রুয়ারি মাসের গড় তাপমাত্রা কিছুটা বেশি থাকতে পারে জানিয়ে বিশেষজ্ঞ কমিটির চেয়ারম্যান সামছুদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘এই মাসের দ্বিতীয়ার্ধে দেশের উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে এক থেকে দু’দিন শিলাবৃষ্টিসহ বজ্রঝড় হতে পারে।’

ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথমার্ধে দেশের নদ-নদীর অববাহিকা ও অন্যত্র সকালের দিকে হালকা ধরনের কুয়াশা থাকার সম্ভাবনা আছে বলেও জানান আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক।

সদ্য শেষ হওয়া জানুয়ারি মাসে দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে ১ দশমিক ৫ ডিগ্রি বেশি ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের চেয়ে কম ছিল বলেও প্রতিবেদনে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞ কমিটি।

রোববার সন্ধ্যা ৬টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, রাজশাহী, পাবনা, পঞ্চগড় ও চুয়াডাঙ্গা জেলার ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

এ সময়ে অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।

এ সময়ে সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে।

রোববার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল রাজশাহীতে ৮ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল সীতাকুন্ডে ৩০ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ সময়ে ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৪ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আপনার মন্তব্য লিখুন............