বঙ্গবন্ধুর গোপালগঞ্জকে আধুনিক ও সমৃদ্ধশালী উপজেলা গঠনে কাজ করতে চাই : জয়

বঙ্গবন্ধুর গোপালগঞ্জকে আধুনিক ও সমৃদ্ধশালী উপজেলা গঠনে কাজ করতে চাই : জয়

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলাবাসী সকলের দোয়া ও সমর্থন প্রত্যাশী তরুন সাংবাদিক এম আরমান খান জয় বলেছেন- বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পুরণে দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গোপালগঞ্জ উপজেলাকে ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত করতে সকলের সহযোগীতা চাই। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে সাংবাদিকতার সাথে সম্পৃক্ত রয়েছি, সাধারণ মানুষের সাথে মেশার সুযোগ হয়েছে। খুব কাছ থেকে দেখারও অভিজ্ঞতা হয়েছে। কিভাবে তাদের উন্নতি করা যায় এ ব্যাপারে যথেষ্ঠ অভিজ্ঞতা অর্জন করেছি। এছাড়া সাধারণ মানুষের কাছে গিয়ে উপকার করতে পারলে নিজের আনন্দ লাগে।

সাংবাদিকতার সুবাধে বিগত দিনগুলোতে সাধারণ মানুষের পাশে যেমন ছায়াসঙ্গী হয়ে ছিলাম, ভবিষ্যতেও থাকতে চাই, উপজেলা ব্যাপী বৃহৎ পরিসরে বেশ কিছু কাজ করার ইচ্ছা আমার রয়েছে। আমি বিশ্বাস করি, যেকোন কিছুতেই সদিচ্ছা থাকলে সফলতার শেষ প্রান্তে পৌছানো সম্ভব। আমার জন্ম নিবাস প্রিয় গোপালগঞ্জ সদর উপজেলাকে নিয়ে একটি সমৃদ্ধ স্বপ্ন রয়েছে আমার। সুযোগ পেলে কিছু করবো। দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে। সকলকে সাথে নিয়ে হাটতে চাই বাকীটা পথ।

এম আরমান খান জয় আরোও জানান, প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের উন্নয়নের জন্য আমি কাজ করতে চাই। গোপালগঞ্জ সদর উপজেলাকে সন্ত্রাস, মাদক, জঙ্গিমুক্ত, পরিছন্ন, আধুনিক ও সমৃদ্ধশালী বিনির্মাণে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে চাই।

বিগত সংসদ নির্বাচনে প্রিয় নেত্রীর প্রতি যে সম্মান এ দেশের মানুষ দেখিয়েছে। জনগণের এ রায়কে সম্মান জানিয়ে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে উপজেলাকে একটি আধুনিক, সমৃদ্ধশালী উপজেলায় পরিণত করা হবে। তরুণরাই গড়বে আগামীর পৃথিবী। তারুণ্য নির্ভর নেতৃত্বই পারবে এই উপজেলার গতিপথ বদলে দিতে। শাসক নয় সেবক হয়ে সকল শ্রেণীপেশার মানুষের জন্য আলাদা আলাদাভাবে কিছু করে যেতে চাই। গ্রাম-মহল্লা পর্যায় পর্যন্ত দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দেয়া, অবকাঠামো উন্নয়ন, শিক্ষা, কৃষি, স্বাস্ব্য সেবার মানোন্নয়নসহ সব ক্ষেত্রেই কাজ করার ইচ্ছা আছে আমার। আমি এককালের সোনালী আশঁ বলে খ্যাত গোপালগঞ্জে গৌরবান্বিত অতীত ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি ফিরিয়ে আনার দৃঢ় অঙ্গীকার ব্যক্ত করছি।

শিশু, কিশোর, তরুণ-তরুণী, নারী, পুরুষ, বৃদ্ধ, কৃষক, শ্রমিকদের জন্য পৃথকভাবে বেশ কিছু কাজ করার প্রবল ইচ্ছে আমার রয়েছে। সুযোগ পেলে অবশ্যই এসব করবো। মাদক নির্মূল এবং বেকারত্ব দূরীকরণের সমাধানের পথ খুঁজে বের করবো।

আমি শতভাগ আশাবাদী, প্রিয় গোপালগঞ্জবাসী আমাকে মূল্যায়ন করবেন। খানিকটা বৃহৎ পরিসরে মানুষের জন্য কিছু করারও একটা স্কোপ তৈরি হবে তখন।

আমি কনফিডেন্সলি বলছি, ভালো কিছু, সুন্দর কিছুই হবে ইনশাআল্লাহ।

এম আরমান খান জয় গোপালগঞ্জবাসীর কাছে একজন প্রিয় ব্যক্তিত্ব হিসেবে পরিচিত। দলমত নির্বিশেষে তার জনপ্রিয়তাও রয়েছে। নিরঅহংকার এই তরুন সাংবাদিক সকল বয়সের মানুষের সাথে একান্ত ভাবে চলাচলের কারণেই সবার ভালোবাসা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন। বর্তমানে এম আরমান খান জয় গোপালগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি, গোপালগঞ্জ জেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির উপ-প্রচার সম্পাদক হিসাবে দায়ীত্বে আছেন। একাধারে সমাজ সেবক, অসহায় মানুষের বন্ধু এবং তরুণ ও যুবকদের আইডল বন্ধু হিসেবে পরিচিত লাভ করেছেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন............