বালিয়াডাঙ্গীতে বিএনপি’র ইফতার ও দোয়া মাহফিল

0
234
বালিয়াডাঙ্গীতে বিএনপি’র ইফতার ও দোয়া মাহফিল

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ছোট ভাই ঠাকুরগাঁও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সদর পৌর মেয়র মির্জা ফয়সাল আমিন বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে নির্যাতন নিপীড়ন অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়েছে। কারণ এই সরকারের কোনো জবাবদিহিতা নেই। এই সরকার একদলীয় এবং ভোটারবিহীন অবৈধ সরকার। এই সরকারের নির্যাতন বন্ধ করতে হলে আমাদেরকে কঠিন আন্দোলন করতে হবে। আন্দোলনের মাধ্যমেই সভ্যতা ও গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে।

বেগম জিয়ার কারাবন্দি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বর্তমান সরকার মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে বন্দি করেছে। উচ্চ আদালত জামিন দিলেও নিম্ন আদালত জামিন দিচ্ছে না। তারা সম্পূর্ণ সরকারের নিয়ন্ত্রণে। বিচারবিভাগের পৃথকীকরণ সত্যিকারার্থে আর নেই।

গতকাল শনিবার বাদ আসর ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা বিএনপির উদ্যোগে আলোচনা দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানে স্থানীয় পিপলস কিন্ডার গার্টেন স্কুল মাঠে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি একথা বলেছেন।

প্রধান বক্তা জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি ওবায়দুল্লাহ মাসুদ বলেন, সরকার জনগণের মতামতকে বিশ্বাস করেনা। বর্তমান অনৈতিক সরকার একদলীয় সরকারের আদলে দেশ পরিচালনা করছে। এ অবস্থায় হারানো গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে সব গণতন্ত্রকামী মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আপোষহীন নেত্রী কারাবন্দী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে আবারো তার নেতৃত্বে বহুদলীয় গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে হলে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আনন্দোলনে অংশ নিতে হবে।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ডক্টরস এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ, ড্যাব কেন্দ্রীয় কমিটি ও ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি ডা. মোঃ আব্দুস সালাম বলেন, আওয়ামীলীগের এই ফ্যাসীবাদী সরকার অন্যায় ভাবে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র চেয়ারর্পাসন তিন বারের সাবেক প্রধান মন্ত্রী আপোষহীন লৌহ মানবী নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে জেলে বন্দি করে রেখেছে। তিনি বর্তমানে বিভিন্ন অসুস্থ্যতায় ভুগছেন। তার সঠিকভাবে চিকিৎসা ও সেবা পাচ্ছেনা না। তিনি অরো বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে নির্যাতন নিপীড়ন অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়েছে। কারণ এই সরকারের কোনো জবাবদিহিতা নেই। এই সরকার একদলীয় এবং ভোটারবিহীন অবৈধ সরকার।

ডাঃ আব্দুস সালাম প্রত্যাশা ব্যক্ত করে বলেন, আপনারা খালেদা জিয়ার জামিন বিলম্বিত করতে পারেন। কিন্তু তিনি মুক্তি পাবেন। আমাদের দলের নেতৃত্ব দেবেন। বিএনপি বেগম জিয়ার নেতৃত্বেই আগামী নির্বাচনে অংশ নেবে এবং বাংলাদেশে আগামী দিনে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে ইনশাল্লাহ।

বিএনপি একটি গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল। আমরা প্রত্যাশা করি আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু হবে। মানুষ নির্ভয়ে ভোট দিতে পারবে। বিশেষ করে গ্রামের ভোটারেরা ভোটকেন্দ্রে যাবেন নি:সঙ্কোচে। কোনো সমস্যা থাকবেনা। এরবাইরে কোনো নির্বাচন জনগণ মানবেনা, হতেও দিবেনা। সারাদেশের ২০ দলীয় জোটের তৃর্ণমুল পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের আন্দোলন জোরদারের মাধ্যমে তার মুক্তি করে আমাদের ঘরে ফিরতে হবে।

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা বিএনপির সভাপতি রাজিউর রহমান রহমান চৌধুরী সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জাফুরুল্লা, কোষাদক্ষ শরিফুল ইসলাম।

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি ডাঃ তোফাজ্জল হোসেন, সাধারন সম্পাদক ড. টিএম মাহাবুবুর রহমান, সহ- সাধারন সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সোবহান, সাংগঠনিক সম্পাদক খোরশেদ আলম, এ্যাডঃ আবেদুর রহমান, যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক মামুন আক্তার সবুর, উপজেলা যুবদলের সভাপতি ইউসুফ আলী, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, সাধারন সম্পাদক ওমর ফারুক পান্না প্রমুখ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা বিএনপি ও তার সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরাসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন পর্যায়ের শীর্ষ নেতাকর্মীরা।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য লিখুন............