বিশ্বকাপ মিশনে সুজনই টাইগারদের ম্যানেজার!

0
7
বিশ্বকাপ মিশনে সুজনই টাইগারদের ম্যানেজার!

ক্রীড়া ডেস্ক : দেখতে দেখতে সময় বয়ে যাচ্ছে। ক্যালেন্ডারের পাতা উল্টে হিসেব কষলে বিশ্বকাপ শুরুর বাকি আর দুই মাস। আর ১৫-১৬ দিন পরই দল ঘোষণা। কোন ১৫ সৌভাগ্যবান হবেন এবারের বিশ্বকাপে টিম বাংলাদেশের স্বপ্ন সারথী?

বাংলা নববর্ষের আনন্দমুখর সময়ের রেশ থাকতে থাকতেই হবে বিশ্বকাপের দল ঘোষণা। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জাগো নিউজের সাথে আলাপে বেশ কবারই বলেছেন, ২২ এপ্রিল যেহেতু প্র্যাকটিস শুরু, এর তিন-চার দিন আগেই আমরা দল চূড়ান্ত করে ফেলবো।

কাজেই ধরেই নেয়া যায় ১৮ এপ্রিলের মধ্যে দল ঘোষণা। বিশ্বকাপের দলটি কেমন হবে, ক’জন ব্যাটসম্যান, ক’জন পেস বোলার, ক’জন স্পিনার এবং ব্যাকআপ উইকেট কিপার ক’জন? এসব জানতে উন্মুখ ভক্ত ও সমর্থকরা।

অবশ্য ১৫ জনের অন্তত ১৩ জন কারা? তা কম বেশী অনেকেরই জানা। দু’একটি পজিশনে ক্রিকেটার মনোনয়ন নিয়ে রয়েছে খানিক দ্বিধা। তবে ভিতরের খবর, দল গঠন ও ক্রিকেটার মনোনয়নের পাশাপাশি আরও একটি বিষয় নিয়ে খোদ বোর্ডের অভ্যন্তরেই আছে সংশয়। তাহ লো ম্যানেজার কে হবেন ?

বেশ দীর্ঘদিন ধরে বড় আসরে যিনি জাতীয় দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করে আসছেন, ২০১৫ সালে সর্বশেষ বিশ্বকাপেও যিনি ছিলেন ক্রিকেট ম্যানেজার- সেই খালেদ মাহমুদ সুজন এবারো দায়িত্বে থাকবেন? নাকি অন্য কেউ ম্যানেজার হবেন?

তা নিয়েই আছে সংশয়। এর আগে জাগো নিউজের সাথে আলাপে খালেদ মাহমুদ সুজন অপারগতা প্রকাশ করে বলেছিলেন, ‘আয়ারল্যান্ড সফর আর বিশ্বকাপ মিলে প্রায় আড়াই মাসের মত সময় বাইরে কাটানো কঠিন। কাজেই আমি বোধ হয় বিশ্বকাপে ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করবো না। ‘

খালেদ মাহমুদ সুজনের অমন বক্তব্যের পর মনে হচ্ছিলো, নিউজিল্যান্ড সফরে ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করা খালেদ মাসুদ পাইলটই বুঝি দায়িত্ব নেবেন। কিংবা ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি প্রধান আকরাম খানই হয়তো ম্যানেজার হয়ে যাবেন ইংল্যান্ডে।

তবে জাতীয় দল পরিচালনা, পরিচর্যা ও তত্ত্বাবধানসহ যাবতীয় অবকাঠামোগত এবং আনুসাঙ্গিক সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিতের দায়িত্বে থাকা ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান অবশ্য বারবার বলেছেন, নাহ সুজনই ম্যানেজার।

কিন্তু তিনি তো না যাওয়ার কথা বলেছেন। যত বার আকরাম খানকে এমন কথা বলা হয়েছে, প্রতিবারই একটি উত্তর ঘুরে ফিরে এসেছে আকরামের মুখ থেকে, নাহ দেইখেন শেষ অবধি সুজনই ম্যানেজার হয়ে যাবে।

অবশেষে আজ সকাল গড়িয়ে দুপুর নামার আগে মিলেছে সেই কথার সত্যতা। এ প্রতিবেদকের সঙ্গে ব্যক্তিগত আলাপে খালেদ মাহমুদ সুজন অবশেষে স্বীকার করেছেন, হ্যাঁ, হয়ত আমাকেই ম্যানেজারের দায়িত্ব নিতে হবে।

সেটা যে বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপন এবং শীর্ষ কর্তাদের ইচ্ছায়, তা বলতে ভোলেননি। আর তাই মুখে এমন কথা, হ্যাঁ, শেষ পর্যন্ত আমাকে দায়িত্ব নিতে হবে।

তাহলে আপনিই ম্যানেজার বিশ্বকাপে? সুজনের ছোট্ট জবাব, হ্যাঁ, আমিই হয়ত যাব। বোর্ডের ইচ্ছাতেই আমার সিদ্ধান্ত পাল্টাতে হচ্ছে। তবে আমি দায়িত্ব নিলেও শুধ্ইু বিশ্বকাপের সময়টুকু। আয়ারল্যান্ড সফরে যাবো না। আমি শুধু বিশ্বকাপ মিশনেই দলের সঙ্গে কাজ করবো। হয়তো ২৩ কিংবা ২৪ মে মানে আয়ারল্যান্ড থেকে জাতীয় দলের বহর ইংল্যান্ডে ফেরার পর দলের সাথে গিয়ে মিলবো।

আপনার মন্তব্য লিখুন............