বেরোবিতে দুই সাংবাদিককে ছাত্রলীগ নেতার মারধর

0
45
বেরোবিতে দুই সাংবাদিককে ছাত্রলীগ নেতার মারধর

অনলাইন ডেস্ক : বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (বেরোবি) দুই সাংবাদিককে মারধর করেছেন এক ছাত্রলীগ নেতা। মঙ্গলবার বিকালে শহীদ মুখতার ইলাহী হলের তৃতীয় তলায় এ ঘটনা ঘটে।

দৈনিক সংবাদের প্রতিনিধি ও সাংবাদিক সমিতির কোষাধ্যক্ষ আল আমীন হোসাইন এবং বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রতিনিধি ও সাংবাদিক সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৌম্য সরকারকে মারধর করেন বেরোবি ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদুল হাসান জয়।

মারধরের শিকার দুই সাংবাদিক আল আমীন হোসাইন জানান, গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে শহীদ মুখতার ইলাহী হলে আসন বরাদ্দ পান তিনি। দীর্ঘদিন থেকে তিনি ওই আসনে উঠতে পারছিলেন না। তাই মঙ্গলবার এ বিষয়ে কথা বলার জন্য তিনি বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রতিনিধি সৌম্যকে সঙ্গে নিয়ে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তুষার কিবরিয়া ও হল সভাপতি হাসান আলীর সঙ্গে দেখা করতে যান।

দেখা করার পর ছাত্রলীগের সভাপতি তুষার কিবরিয়া তাকে একটি সিটে উঠতে বলেন। পরে শাখা ছাত্রলীগ সভাপতির কথামতো তারা সিটে উঠতে গেলে প্রথমে সৌম্য সরকারকে কোনো কথা ছাড়াই মারধর শুরু করেন ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদুল হাসান জয়।

পরে তাকে চড়থাপ্পড় ও কিলঘুষি দিয়ে সিড়ি থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়া হয়। এ সময় আরেক সাংবাদিক আল আমীন এগিয়ে গেলে তাকেও মারধর শুরু করেন জয়। তাকে মারতে মারতে তিন তলা থেকে নীচে নামিয়ে আনেন তিনি।

এ সময় আল আমীন চিৎকার করলে জয়ের অনুসারী ছাত্রলীগ কর্মী রাসেল তার গলা চেপে ধরেন এবং চিৎকার করতে নিষেধ করেন।

পরে কয়েকজন এসে তাদের দুজনকে উদ্ধার করে। তাদের চিৎকারে নীচে নেমে আসেন শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তুষার কিবরিয়া ও হল সভাপতি হাসান আলী। তারা মারধরের শিকার সাংবাদিকদের ডেকে নিয়ে হলের গেস্ট রুমে বসিয়ে মাহমুদুল হাসান জয়ের কাছে মারধরের কারণ জানতে চান। এ সময় তাদের ওপরও তেড়ে আসেন জয়। পরে ঘটনার জন্য ভুল শিকার করে ওই দুই সাংবাদিককে হলে উঠতে বলা হয়।

এ সময় ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদুল হাসান জয় বলেন, সাংবাদিকদের মারধর করেছি- যা করার করেন।

এ বিষয়ে শাখা ছাত্রলীগ সভপতি তুষার কিবরিয়া বলেন, এটি অনাকাঙ্ক্ষিত ছিল। আমরা মীমাংসার চেষ্টা করছি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর (চলতি দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. একেএম ফরিদ-উল ইসলাম বলেন, বিষয়টি যেহেতু হলের ঘটনা- তাই হল প্রভোস্ট দেখবেন।

বিষয়টি কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনকে অবগত করলে তিনি বলেন, বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য লিখুন............