মওদুদের ওপর চটেছেন খালেদা

মওদুদের ওপর চটেছেন খালেদা

শব্দপাতা ডেস্ক : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের ওপর চটেছেন দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। কারাবন্দি খালেদা জিয়া আদালতে মওদুদকে বলেন, ‘আপনার সঙ্গে হবে না। খোকন (ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন) কোথায়?’ তখন খোকন খালেদা জিয়ার সামনে আসেন। এরপর খালেদা জিয়া তার সঙ্গে আলাপ করতে থাকেন।

বৃহস্পতিবার নাইকো মামলার অভিযোগ গঠন শুনানি শেষে ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডে পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে অবস্থিত ঢাকার ৯ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের ভেতরে মওদুদ ও অন্যান্য আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলেন খালেদা জিয়া। কথা বলার একপর্যায়ে খালেদা জিয়া মওদুদের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে যান।

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ খালেদা জিয়ার সঙ্গে বর্তমান রাজনীতি নিয়ে আলোচনা করতে থাকেন। খালেদা জিয়া বারবার মওদুদকে বলেন, যে কোনো বিষয় আপনারা বসে সিদ্ধান্ত নেবেন। সে তো বিদেশে আছে (তারেক রহমান)। মওদুদ বারবার একই বিষয় প্রশ্ন করতে থাকেন খালেদাকে। তখন খালেদা জিয়া তার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে যান।

খালেদা জিয়ার সঙ্গে কী আলাপ হয়েছে এ বিষয় মওদুদকে প্রশ্ন করা হলে তিনি কিছুই বলতে রাজি হননি।

বছরের শুরু ও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে আজ পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে অবস্থিত বিশেষ জজ আদালতে প্রথম হাজির করা হয়। এদিন নাইকো দুর্নীতি মামলার অভিযোগ গঠন শুনানির দিন ধার্য ছিল। দুপুর ১২টা ১০ মিনিটে হুইল চেয়ারে খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির করা হয়। বেলা ২টা ১০ মিনিটে শুনানি শেষে আবার কারাগারে নেয়া হয় তাকে। এ কারাগারেই দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে বন্দি রয়েছেন খালেদা জিয়া।

অভিযোগ গঠন শুনানি শেষ না হওয়ায় পরবর্তী অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য আগামী ১৩ জানুয়ারি দিন ধার্য করেন আদালত।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দুদকের দায়ের করা দুই মামলায় ১০ ও ৭ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হয়ে কারাবন্দি আছেন। আপিলে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ড বেড়ে ১০ বছর এবং জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিশেষ আদালতে ৭ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হন তিনি।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণার পর পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডে অবস্থিত পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে খালেদা জিয়া আছেন। সেখান থেকেই গত ৬ অক্টোবর চিকিৎসকদের পরামর্শে খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে নেয়া হয়। টানা এক মাস ২ দিন বিএসএমএমইউয়ে চিকিৎসা নেয়ার পর ৮ নভেম্বর তাকে কারাগারে ফিরিয়ে নেয়া হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন :

আপনার মন্তব্য লিখুন............