রূপগঞ্জে গাজীকে ঠেকাতে ওরা ৩’এ একজোট

0
89
রূপগঞ্জে গাজীকে ঠেকাতে ওরা ৩’এ একজোট

শব্দপাতা রিপোর্ট : নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনের বর্তমান আওয়ামীলীগের এমপি গাজী গোলাম দস্তগীর বীর প্রতীককে উদ্দেশ্য করে শুধু রূপগঞ্জ নয় নারায়ণগঞ্জ ছেয়ে ফেলেছে পোস্টারে। যে পোস্টারে লেখা রয়েছে রূপগঞ্জে আর নয় বহিরাগত এমপি চাই এবার রূপগঞ্জের সন্তান। এ আসনের বর্তমান এমপিকে ঠেকাতে একজোট হয়ে মাঠে নেমেছেন আওয়ামীলীগের তিন নেতা। ইতিমধ্যে তারা নিজেদের মত করে নৌকার পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় নেমেছেন বেশ জোরেসোরে। এদের সঙ্গে নৌকার দাবিতে মাঠে নেমেছেন মেয়র হাসিনা গাজীও। যদিও কেউ কেউ মনে করছেন হাসিনা গাজী মুলত তার স্বামী এমপি গাজীর ড্যামী প্রার্থী।

জানাগেছে, রূপগঞ্জ আসনে আবারো মনোনয়ন প্রত্যাশা নিয়ে নির্বাচনী মাঠে নেমেছেন এমপি গাজী গোলাম দস্তগীর। তিনি নিয়মিত নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা ও গণসংযোগ করছেন। সেই সঙ্গে নৌকা প্রতীকের প্রত্যাশা নিয়ে মাঠে নেমেছেন এমপি গাজীর সহধর্মিনী হাসিনা গাজীও নির্বাচনী প্রচারণায় নেমেছেন।

এছাড়াও কয়েক বছর ধরে এ এলাকায় নৌকার পক্ষে প্রচারণায় রয়েছেন কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রফিক। তিনি নিয়মিত এ আসনে প্রচারণা করছেন। নৌকার পক্ষে ভোট চাচ্ছেন।

রফিকুল ইসলাম রফিকের সঙ্গে জোটবদ্ধ দেখা যাচ্ছে এ আসনের আরেক মনোনয়ন প্রত্যাশী রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান ভূইয়া। তিনিও নিয়মিত নৌকার পক্ষে কাজ করছেন।

এর আগে গত ৮ ফেব্রুয়ারি এমপি গাজী গ্রুপ ও রফিক-শাহজাহান বলয়ের নেতাকর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় একজন নিহত হন। ওই হত্যাকান্ডের ঘটনায় আওয়ামীলীগের একাংশের নেতাকর্মীদের আসামি করা হয়। এছাড়াও এর কদিন পর আরেকটি হত্যাকান্ড ঘটলেও সেখানেও দুই গ্রুপের এক গ্রুপের নেতাকর্মীদের আসামি করা হয়। এর আগে মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনেও এক বলয়ের যুবলীগ কর্মী নিহত হন।

এদের ছাড়াও এখন মনোনয়ন প্রত্যাশা নিয়ে মাঠে নেমেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবদুল হাই। তিনিও নৌকার প্রত্যাশা নিয়ে এ আসনে নির্বাচনী প্রচারণায় রয়েছেন। এই তিন নেতা একজোট হয়ে এবার রূপগঞ্জের সন্তানকেই এমপি হিসেবে দেখতে চান বলে শ্লোগান তুলছেন। নেতাকর্মীরাও চান রূপগঞ্জের কোন সন্তানের হাতে নৌকা প্রতীকে তুলে দেয়া হোক।

আপনার মন্তব্য লিখুন............

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here