শিক্ষককে হাতুড়ি পেটা

0
5
শিক্ষককে হাতুড়ি পেটা

অনলাইন ডেস্ক : নড়াইল সদর উপজেলার বাঁশগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলামের বড় ভাই লক্ষ্মীপুর দাখিল মাদরাসার ইংরেজি শিক্ষক মো. রওশন আলম পলাশকে হাতুড়ি পেটা ও কুপিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। ৭ এপ্রিল রবিবার দুপুর ১২টার দিকে নড়াইল-কালিয়া রোডের মাধাভাঙ্গা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত শিক্ষককে স্থানীয়রা উদ্ধার করে নড়াইল সদর হাসপাতলে ভর্তি করেছেন।

বাঁশগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সিরাজুল ইসলাম বলেন, আমারর ভাই রওশন আলম পলাশ একজন ইংরেজি শিক্ষক। তিনি কোনো রাজনিতির সঙ্গে জড়িত নয়।

প্রতিদিনের মতো আজও আমার ভাই মাদরাসার যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে রওনা হন। তাকে খুন করার জন্য এলাকার কিছু চিহ্নিত সন্ত্রাসী পথিমধ্যে অবস্থান করে। মাধাভাঙ্গা এলাকায় আমার ভাই পৌঁছালে সন্ত্রাসীরা আক্রমণ করে শরীরের বিভিন্ন স্থানে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে এবং কুপিয়ে জখম করে। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নড়াইল সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার আ ফ ম মশিউর রহমান বাবু বলেন, আহত পলাশের শরীরের হাত, পা ও মাথাসহ বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পায়ে কোপের চিহ্ন আছে। তার চিকিৎসা চলছে।

এ বিষয়ে নড়াইল সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ ইলিয়াস হোসেন বলেন, আমি বিষয়টি শুনেছি। তবে থানায় এখনো কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন............