শিশু ধর্ষণের দায়ে বৃদ্ধের যাবজ্জীবন

0
7
শিশু ধর্ষণের দায়ে বৃদ্ধের যাবজ্জীবন

অনলাইন ডেস্ক : বর্তমান পরিস্থিতিতে শিশুরা দিনদিন নিরাপত্তাহীনতার কবলে পড়ছে। কোন বয়সের মানুষের কাছেই যেন শিশুরা নিরাপদ নয়। যে বিষয়টি আমাদের সমাজ ব্যবস্থাকে প্রশ্নবিদ্ধ করছে প্রতিনিয়ত। গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার চিনাশুকানিয়া এলাকায় ৩য় শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে বিল্লাল ভূঁইয়া (৬০) নামে এক বৃদ্ধের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (৫ ফেব্রুয়ারি) গাজীপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক এমএ মেজবাহ উদ্দিন প্রকাশ্য আদালতে এ রায় দেন। এ সময় আসামি বিল্লাল ভূঁইয়া আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। দণ্ডপ্রাপ্ত বিল্লাল ভূঁইয়া শ্রীপুর উপজেলার চিনাশুকানিয়া গ্রামের রহম উদ্দিন ভূঁইয়ার ছেলে। তাকে সাজা পরোয়ানা মূলে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, গত ২০১৭ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর বেলা ১১টার দিকে স্থানীয় একটি স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির ওই ছাত্রী বিল্লাল ভূঁইয়ার বসতবাড়িতে খেলতে যায়। এ সময় বিল্লাল ভূঁইয়া মেয়েটিকে তার ঘরের মেঝে ঝাড়ু দেয়ার জন্য ডেকে নেয়। মেয়েটি ঘরের মেঝে ঝাড়ু দেয়ার সময় বিল্লাল ভূঁইয়া তাকে ধর্ষণ করে এবং ঘটনাটি প্রকাশ না করতে মেয়েটিকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়। পরে ভিকটিম ঘটনাটি তার মাকে জানালে তিনি বাদী হয়ে তিনজনকে আসামি করে ২১ সেপ্টেম্বর শ্রীপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ তদন্ত করে ওই বছরের ১৭ নভেম্বর বিল্লাল ভূঁইয়াকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দেয়।

আদালতের বিচারক এম এ মেজবাহ উদ্দিন ভূঁইয়া উভয়পক্ষের শুনানি শেষে মঙ্গলবার এ রায় দেন। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মামলার অপর দুই আসামি রুবেল ও হেলাল খানকে পুলিশ মামলার চার্জশিট থেকে অব্যাহতি দিয়েছিল।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পিপি ফজলুল কাদের। তিনি রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন............