সড়কে রক্ত ঢেলে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ

0
28
সড়কে রক্ত ঢেলে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ

অনলাইন ডেস্ক : রক্তে সড়ক রঞ্জিত করে দুই বিভাগ একীভূত না করার দাবি জানিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ইলেকট্রনিক অ্যান্ড ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বিজ্ঞান ভবনের সামনে এ অভিনব প্রতিবাদ জানান তারা। রাস্তায় রক্ত ঢেলে কর্মসূচি পালন করলে এ সময় বিভাগের তিন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাদের একজনকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।

শিক্ষার্থীরা হলেন, তৃতীয় বর্ষের নাজমুল ইসলাম, আবু বক্কর সিদ্দিক ও দ্বিতীয় বর্ষের অরিন্দম স্যানাল দীপ্ত। পরে বিকেলে সংবাদ সম্মেলন করে এদিনের কর্মসূচি স্থগিত করেন শিক্ষার্থীরা। বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় যৌক্তিক সিদ্ধান্ত না এলে কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা দেন।

ফলিত পদার্থবিজ্ঞান ও ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (এপিইই) বিভাগের শিক্ষার্থীরা বিভাগ একীভূত করার দাবিতে দু’দিন ধরে আমরণ অনশন করেন। অনশনে তিন শিক্ষার্থী গুরতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাদের রামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এদিন দুপুর দেড়টায় প্রক্টর লুৎফর রহমান, বিভাগের সভাপতি আরিফুল ইসলাম নাহিদ, অধ্যাপক মোজাফফর হোসেন তাদের অনশন ভঙ্গ করান। পরে শিক্ষক ও প্রক্টর তাদের আশ্বস্ত করলে তারা চলে যান। তারা আজকের একাডেমিক কাউন্সিল সভার সিন্ধান্তের দিকে তাকিয়ে আছেন। ইতিবাচক সিদ্ধান্ত না এলে তারাও কঠোর কর্মসূচি দেবেন বলে জানান।

জানতে চাইলে ইইই বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক আবু জাফর মু. তৌহিদুল ইসলাম বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে এ সমস্যা সমাধানের জন্য বলে আসছি। প্রশাসন এখনো কোনো সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি। বুধবার একাডেমিক কাউন্সিল সভায় বিষয়টি উত্থাপিত হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, বিভাগ একীভূতকরণ আন্দোলন যৌক্তিক। দেখা যাক আজকের কাউন্সিল সভায় কী হয়।

গত ১১ নভেম্বর থেকে বিভাগ দু’টিকে একীভূতকরণের দাবিতে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে আসছিল এপিইইর শিক্ষার্থীরা। এর বিরুদ্ধে ২০ নভেম্বর থেকে ইইইর শিক্ষার্থীরা পাল্ট আন্দোলনে নামে।

আপনার মন্তব্য লিখুন............

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here